করোনা: আক্রান্ত হয়েও কণিকা কাপুরের উদাসীনতা

বিনোদন: ‘বেবি ডল’-খ্যাত বলিউড গায়িকা কণিকা কাপুরের বিরূদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। ঔদাসীন্য ও মারাত্মক রোগের সংক্রমণ ছড়াতে পারে এমন অবহেলামূলক কাজ করার জন্যই এই পদক্ষেপ।

লন্ডন থেকে ফিরে লখনউয়ে তিনটি জমায়েতে গিয়েছিলেন গায়িকা। এমনকি একটি পার্টিতে রাজনৈতিক নেতারাও উপস্থিত ছিলেন। তারপরেই জানা যায়, কণিকা কাপুর করোনা আক্রান্ত।

পুলিশ কমিশনার সুরজিৎ পাণ্ডের বরাত দিয়ে ইন্ডিয়ার এক্সপ্রেস জানায়, লখনউয়ের মুখ্য মেডিকেল অফিসারের অভিযোগের ভিত্তিতে এফআইআর দায়ের করে সরোজিনী নগর থানার পুলিশ।

সুরজিৎ বলেন, গায়িকা কণিকা কাপুরের বিরূদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি ২৬৯ (মারাত্মক রোগের সংক্রমণ ছড়াতে পারে এমন অবহেলামূলক কাজ), ২৭০ (মারাত্মক রোগের সংক্রমণ ছড়াতে পারে এমন বিদ্বেষপ্রসূত কাজ), ১৮৮ (সরকারি কর্মচারী কর্তৃক জারীকৃত আদেশ অমান্য করা) ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

কণিকাই প্রথম বলিউড তারকা যিনি করোনা আক্রান্ত। আপাতত পুরোপুরি কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন গায়িকা।

Related Posts
1 এর 165

ইনস্টাগ্রামে নিজেই খবরটি শেয়ার করেছিলেন কণিকা কাপুর। তিনি লেখেন, ”বিগত চার দিন ধরে আমার জ্বরের লক্ষণ ছিল। পরীক্ষা করানোর পর বোঝা যায় আমি কোভিড-১৯-তে আক্রান্ত। আমার পরিবার এবং আমি পুরোপুরি কোয়ারান্টাইনে রয়েছি। চিকিৎসকদের পরামর্শ নিয়ে চলেছি।”

হাসপাতালে কণিকার ব্যবহার নিয়ে রীতিমতো ক্ষুব্ধ চিকিৎসক থেকে নার্স সবাই। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অভিযোগ কণিকা খুবই খারাপ ব্যবহার করছেন হাসপাতালের স্টাফদের সঙ্গে। গায়িকার চাহিদা দিন দিন বাড়ছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অভিযোগ কণিকা হাসপাতালে ফাইভ স্টার হোটেলের সুবিধা চাইছেন। বেশি গদিওয়ালা বিছানা, সুন্দর চাদর, দারুণ খাবার এবং সঙ্গে ২৪ ঘণ্টা তার চাই ওয়াইফাই।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে এমনিতেই অন্যান্য রোগীর থেকে কণিকা বেশি সুবিধা পাচ্ছেন। তিনি যদি হাসপাতালের কর্মীদের সঙ্গে সঠিক ব্যবহার না করেন, তাহলে চিকিৎসা করা কঠিন হয়ে পড়বে।


আইনিউজ/এসডি