ছবির গল্প
গণিতের নিয়মে শ্রেষ্ঠ সুন্দরী বেলা হাদিদ

বিনোদন: বিশ্বসুন্দরী নিয়ে মানুষের আগ্রহের শেষ নেই। বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতাগুলোতে নানা উপায়ে নির্ধারণ করা হয় সেরা সুন্দরী। তবে, বিজ্ঞানসম্মত সুন্দরী! এ আবার কী বিষয়! ‘গোল্ডেন রেশিও অব বিউটিফাই স্ট্যান্ডার্ডস’ নামক একটি গবেষণায় বিশ্বের শ্রেষ্ঠ সুন্দরী নির্বাচিত হয়েছেন মার্কিন মডেল বেলা হাদিদ। মূলত, তারকাদের মুখের মাপ নিয়ে এই ফলাফল ঘোষণা করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

গ্রিক গণিতবিদ্যার নিয়ম অনুযায়ী গবেষকদের দেয়া এই রায়ে সবচেয়ে বেশি ৯৪ দশমিক ৩৫ শতাংশ নম্বর পেয়েছেন ২৩ বছর বয়সী সুপার মডেল বেলা। ‘গোল্ডেন রেশিও’ একটি প্রাচীন গ্রিক পদ্ধতি। গাণিতিক ফর্মুলা ব্যবহার করে মুখের বিভিন্ন অংশের অনুপাত নির্ধারণ করে সৌন্দর্যের সংজ্ঞা নির্ধারণ করতেন গ্রিক পন্ডিতরা।

জরিপে দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন মার্কিন গায়িকা বিয়ন্সে। তার চেহারা ৯২ দশমিক ৪৪ শতাংশ নিখুঁত।

তৃতীয় অবস্থানে আছেন অভিনেত্রী অ্যাম্বার হার্ড। পেয়েছেন ৯১ দশমিক ৮৫ শতাংশ নম্বর।

গবেষণার ফলাফলে ৯১ দশমিক ৮১ শতাংশ নম্বর নিয়ে পপতারকা অ্যারিয়ানা গ্র্যান্ডে চতুর্থ অবস্থানে।

৯১ দশমিক ৬৪ শতাংশ স্কোর নিয়ে পপতারকা টেইলর সুইফট রয়েছেন তালিকার পঞ্চম স্থানে।

ব্রিটিশ মডেল কেট মস হয়েছেন ষষ্ঠ। তার স্কোর ৯১ দশমিক ০৫ শতাংশ।  হলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী স্কারলেট জোহানসন রয়েছেন সপ্তম স্থানে। তার স্কোর ৯০ দশমিক ৯১ শতাংশ। আরেক অভিনেত্রী নাটালি পোর্টম্যান ৯০ দশমিক ৫১ শতাংশ স্কোর নিয়ে হয়েছেন অষ্টম। এছাড়া, পপতারকা কেটি পেরি ৯০ দশমিক ০৮ শতাংশ স্কোর নিয়ে নবম স্থানে রয়েছেন। মডেল-অভিনেত্রী কারা ডেলাভিগনে রয়েছেন ১০ নম্বরে। তার স্কোর ৮৯ দশমিক ৯৯ শতাংশ।

লন্ডনের প্রসিদ্ধ ফেসিয়াল কসমেটিকস সার্জন জুলিয়ান ডি সিলভা গবেষণাটি পরিচালনা করেছেন। তারকাদের গোল্ডেন রেশিও পরিমাপ করে তিনি বলেন, মুখমণ্ডলের বিচারে বেলা হাদিদ নিরঙ্কুশভাবে বিজয়ী হয়েছেন। তার মুখই সবচেয়ে নিখুঁত। চিবুকের জন্য তিনি সর্বোচ্চ স্কোর করেছেন ৯৯ দশমিক ৭ শতাংশ, যা নিখুঁত থেকে মাত্র দশমিক ৩ শতাংশ কম। তবে চোখের অবস্থানে নিখুঁত হওয়ার দিক থেকে তিনি স্কারলেট জোহানসনের পেছনে রয়েছেন। গড়নে বিয়ন্সে অনেক এগিয়ে থাকলেও কপাল ও ঠোঁটের কারণে পিছিয়ে গেছেন। সার্বিকভাবে সবার চেয়ে এগিয়ে আছেন বেলা।

মার্কিন সুপার মডেল বেলার পুরো নাম ইসাবেলা খায়ের হাদিদ। তিনি ১৯৯৬ সালের ৯ অক্টোবর যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসে জন্মগ্রহণ করেন। ফিলিস্তিন-আমেরিকান আবাসন ব্যবসায়ী মোহাম্মদ হাদিদ ও ডাচ বংশোদ্ভূত মডেল ইয়োলান্দা হাদিদের ছোট মেয়ে বেলা। মোহাম্মদ হাদিদ কিশোর বয়সে যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ী হন। বেলা হাদিদের বড় বোনও একজন সুপারমডেল। ছোট ভাই আনোয়ারও একজন মডেল।

২০১৭ সালে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ আটটি দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের বিষয়ে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পদক্ষেপের সমালোচনা করে আলোচনার জন্ম দেন বেলা হাদিদ। তিনি বলেছেন, একজন মুসলিম ও একজন শরণার্থীর মেয়ে হিসেবে তিনি গর্বিত।

আইনিউজ ডেস্ক/আরডি