চট্টগ্রামে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের বিরুদ্ধে স্ত্রীর যৌতুকের মামলা

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের কর্মরত মোহাম্মাদ মাসুদুর রহমান রুবেল নামে এক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের বিরুদ্ধে ঢাকার সিএমএম আদালতে যৌতুক আইনে মামলা করেছেন তার স্ত্রী।

সোমবার (২ ডিসেম্বর) সকালে ঢাকা সিএমএম আদালতে ফারজানা খানম রিনি (২৫) এ মামলা করেন।

স্ত্রী ফারজানা খানম রিনি একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্প্রতি এলএলবি ডিগ্রি অর্জন করেছেন।

ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ জসিম অভিযোগের উপর বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে অভিযোগ আমলে আগামী ২৯ জানুয়ারি ওই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে আদালতে হাজির হতে সমন জারি করেছেন।

২০১৮ সালের যৌতুক নিরোধ আইনের ৩ ধারায় দায়ের করা এ মামলার বাদীর আইনজীবী কাওয়ার আহম্মেদ জানান, ওই আইনের ৩ ধারায় ‘যদি বিবাহের কোনো এক পক্ষ, প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে, বিবাহের অন্য কোনো পক্ষের নিকট কোনো যৌতুক দাবি করেন, তাহা হইলে উহা হইবে এই আইনের অধীন একটি অপরাধ এবং তজ্জন্য তিনি অনধিক পাঁচ বছর কিন্তু অন্যূন এক বৎসর কারাদণ্ড বা অনধিক ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডনীয়।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, বাদী ও আসামির দীর্ঘদিনের পরিচয় ও প্রেমের পরিণতি হিসেবে গত ২০ সেপ্টেম্বর তাদের বিয়ে হয়। প্রেম করে বিয়ে করায় আসামি বাদীকে বিবাহের কথা গোপন রাখতে বলে এবং পরবর্তীতে পারিবারিক ভাবে সকলের সম্মতিক্রমে সামাজিক মর্যাদা প্রদান করে বাদীকে তুলে নিবে বলে জানায়। অতঃপর মামলার বাদী ও আসামি দাম্পত্য জীবন অতিবাহিত করাকালীন আসামি বাদীর বাবার বাড়ি থেকে যৌতুক বাবদ নগদ ৫০ লাখ টাকা, একটি ফ্ল্যাট, একটি নতুন প্রাইভেটকার ও ৩০ ভরি স্বর্ণালংকার এনে দিতে বলেন। আর এর জন্য বাদীকে চাপ প্রয়োগ ও মানসিক নির্যাতন করতে থাকেন। বাদীর পরিবারের যৌতুক দেয়ার ক্ষমতা নাই মর্মে জানালে আসামি বাদীকে নিয়ে সংসার করবে না মর্মে জানায়।

আইনিউজ/এইচএ