চীনের হয়ে কাজ করছে টিকটক!

তথ্য প্রযুক্তি: টিকটক চীনা সরকারের বিরুদ্ধে সংবেদনশীল রাজনৈতিক বক্তব্য সেন্সর করছে এমনই এক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে গার্ডিয়ান।

চীনা ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপটি এ সংক্রান্ত একটি মডারেশন গাইডলাইন অনুসরণ করে বলে ওই প্রতিবেদনে জানানো হয়।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমটি জানায়, তিয়েনআনমেন স্কয়ারের বিক্ষোভকারী, তিব্বতের স্বাধীনতাকামী এবং ধর্মীয় গোষ্ঠী ফালুন গংয়ের কনটেন্ট টিকটকে অনেকটাই নিষিদ্ধ। তাদের যে কোনো ধরনের ভিডিও কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হয়।

গার্ডিয়ানের দাবি মানতে নারাজ টিকটক

তবে গার্ডিয়ানের এমন দাবি মানছে না টিকটকের মূল প্রতিষ্ঠান বাইটড্যান্স। তারা গার্ডিয়ানের এমন দাবি নাকচ করে জানায়, টিকটকের পুরোনো গাইডলাইনকে নিয়ে গার্ডিয়ান এমনটা দাবি করেছে। যেখান থেকে ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপটি পর্যায়ক্রমে বেরিয়ে এসেছে।

যা ওঠে এসেছে গার্ডিয়ানের অনুসন্ধানে

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমটির অনুসন্ধানে উঠে এসেছে, রাজনৈতিক কারণে হংকংয়ের বিক্ষোভকারীদের কনটেন্টগুলোও নিয়ন্ত্রণ করেছে টিকটক।

অনুসন্ধানে দেখা যায়, নিজস্ব নীতি লঙ্ঘনের কারণে টিকটকের অনেক কনটেন্টকে চিহ্নিত করা হয়েছে, কিছু কনটেন্ট মুছেও ফেলা হয়েছে। আবার কিছু কনটেন্ট শুধু নিজেই দেখতে পারবে বলে নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। এভাবেই টিকটকের কনটেন্ট নিয়ন্ত্রণের বিষয়টি স্পষ্ট হয়ে উঠে।

নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে সংখ্যালঘু মুসলিমদের কনটেন্টও

তাইওয়ান ও চীনা সংখ্যালঘু মুসলিমদের কনটেন্টও নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে বলে গার্ডিয়ান দাবি করে। সরকারের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক ও ধর্মীয় বক্তব্য প্রচার রুখতে বেইজিংয়ের হয়ে এমন নীতি অনুসরণ করছে টিকটক।