‘দেখা হয় নাই চক্ষু মেলিয়া, ঘর হতে শুধু দুই পা ফেলিয়া’ (ছবিঘর)

প্রকৃতিতে চলছে বসন্তকাল। চারদিকে ফুটছে নতুন ফুল। গাছের ডালে বসে ফুলের সৌন্দর্যকেই যেন খুব নিখুঁতভাবে দেখছে কালো ফিঙে পাখিটি। কালো ফিঙে, (Dicrurus macrocercus) রাজকীয় কাক হিসেবেও পরিচিত পাখিটি এশিয়ায় বাস করা ড্রঙ্গো পরিবারভুক্ত একটি ছোট্ট গানের পাখি। এটি গ্রীষ্মমন্ডলীয় অঞ্চলের স্থায়ী বাসিন্দা, একে দক্ষিণ-পশ্চিম ইরান থেকে শুরু করে ভারত এবং শ্রীলংকা হয়ে দক্ষিণ চীন ও ইন্দোনেশিয়া পর্যন্ত দেখতে পাওয়া যায়। ফিঙের মাজা কালো রঙ আর দু’ভাগ করা লেজ দিয়ে একে সহজেই চেনা যায়। ছবি: হেলাল আহমেদ।
নতুন করে ধান রোপনে ব্যস্ত গ্রামের কৃষকরা। এই ধান কাটা হবে বৈশাখে। যেটাকে গ্রামগঞ্জে ‘বৈশাখী ধান’ বলা হয়ে থাকে। ছবি: হেলাল আহমেদ।
জানি এ গানে নেই কোনো অন্তমিল
বাদ্যের রেলা কিংবা বাঁশির দুঃখ
তবুও গেয়ে চলেছি তোমার গান
কণ্ঠে লৌহাঘাত করে উচ্চারিত হচ্ছে রোজ তোমার নাম৷
জানি, এ কোমল সকালে নেই তোমার উপস্থিতি তবু-
শিশির ছুঁয়ে বেহায়া আঙুল অপেক্ষমাণ
তোমার আঙুলের দায়৷
ছবি: হেলাল আহমেদ।