সিলেটে অটোরিকশা চালকদের সড়ক অবরোধ

সিলেট: সিসিক মেয়র মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বিরুদ্ধে সিএনজি স্ট্যান্ড দখল করার অভিযোগ এনে, সড়ক অবরোধ করেছে সিলেট জেলা সিএনজি চালিত অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন।

শনিবার (৩০ নভেম্বর) সিলেট জেলা সিএনজি চালিত অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন শ্রমিকরা কোর্ট পয়েন্ট এলাকায় সড়ক অবরোধ করেন। এসময় কোতোয়ালী মডেল থানার সিনিয়র সহকারি পুলিশ কমিশনার নির্মলেন্দু চক্রবর্তীর আশ্বাসের প্রেক্ষিতে পরিবহণ শ্রমিকদের তাদের কর্মসূচী স্থগিত করেন।

সড়ক অবরোধের সময় শ্রমিকরা জানান, সিলেট নগরীতে ‘নগর এক্সপ্রেস’ বাসগুলো নগরীতে চলুক আমাদের কোনো সমস্যা নেই। কিন্তু সিলেট সিটি করপোরেশন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলপ্রয়োগের মাধ্যমে আমাদের দীর্ঘদিন থেকে ব্যবহারকৃত স্ট্যান্ডগুলো দখল করে ‘নগর এক্সপ্রেস’ বাস কাউন্টার করা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

শ্রমিকরা বলেন, আমাদের জেলা কার্যকরী কমিটির নেতৃবৃন্দ এ ব্যাপারে সিলেটের বিভিন্ন প্রশাসনের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেন। তারপর ও আরিফুল হক চৌধুরী আজ সকাল ১০টায় কোর্ট পয়েন্ট স্ট্যান্ড দখল করানোর জন্য সিটি করপোরেশন সরঞ্জামসহ শ্রমিকদেরকে পাঠান।

এসময় অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন রেজি নং ৭০৭ এর অন্তর্ভুক্ত জিন্দাবাজার মুক্তিযোদ্ধা উপ-পরিষদের সম্পাদক শিবলী আহমদ বলেন, আমরা বেঁচে থাকতে কখনো কেউ আমাদের পেটে লাথি মারতে পারবে না। শুধু তাই নয় সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী পরিবহণ শ্রমিকদেরকে উচ্ছেদ মিশনে ৫০ কোটি টাকা বরাদ্ধ রেখেছেন বলে আমাদেরকে হুমকি দেন। এ ব্যাপারে পরিবহণ শ্রমিকরা প্রশাসনসহ সকল ঊর্ধ্বতন মহলে হস্তক্ষেপ ও সহযোগিতা কামনা করছে।

পরে সিলেট জেলা সিএনজি চালিত অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন রেজি নং ৭০৭ এর কার্যকরী কমিটির সভাপতি জাকারিয়া আহমদ এসে কোতোয়ালী মডেল থানার সিনিয়র সহকারি পুলিশ কমিশনার নির্মলেন্দু চক্রবর্তীকে ঘটনাস্থলে আনেন। পুলিশ কমিশনার নির্মলেন্দু চক্রবর্তীর আশ্বাসের প্রেক্ষিতে পরিবহণ শ্রমিকরা অবস্থান কর্মসূচী স্থগিত করেন। এসময় শ্রমিকদেরকে অধিকার বাস্তবায়নের আশ্বাস দেন করেন নির্মলেন্দু চক্রবর্তী।

এ ব্যাপারে ১ ডিসেম্বর সকাল ১১টায় কোর্ট পয়েন্টে মানব-বন্ধনের আহবান জানান সিলেট জেলা সিএনজি চালিত অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন রেজি নং ৭০৭ এর কার্যকরী কমিটির নেতৃবৃন্দ। সে মানববন্ধনে উক্ত বিষয়ের উপর ব্যাপক আলাপ আলোচনা করা হবে জানান তারা।