সোম দোনা হোটেলে পুরুষ নিষিদ্ধ!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সোম দোনা হোটেল। ভূমধ্যসাগরে স্পেনের বালিয়েরিক দ্বীপপুঞ্জ মাজোরকায় নতুন এই হোটেলের দুয়ার খুললো। এর বিশেষত্ব হলো, এখানে কোনও পুরুষের থাকার অনুমতি নেই!

মাজোরকার পোর্তো ক্রিস্তো শহরে নারীদের জন্য বিশেষভাবে তৈরি হয়েছে সোম দোনা হোটেল। বেড়ানোর জন্য ১৪ বছর থেকে শুরু করে সব বয়সী নারীরা এখানে রুম ভাড়া নিতে পারেন।

সোম দোনা হোটেলের পুলজাঁকজমকময় হোটেলটির রুমের সংখ্যা ৩৯টি। পাশাপাশি এখানে আছে একটি পুল, ছাদবারান্দা, রেস্তোরাঁ, বার লাউঞ্জ, ম্যাসাজ ও সৌন্দর্য চর্চাকেন্দ্র। এতে প্রতি রাতের ভাড়া ৭৫ পাউন্ড (৭ হাজার ৮২৭ টাকা) থেকে শুরু হয়।

সোম দোনা হোটেলের একটি রুমস্পেনে শুধুই নারীদের জন্য গড়া এটাই প্রথম হোটেল। এটি পরিচালনা করে সোম হোটেলস। তাদের দাবি, রুমগুলো চকচকে ও প্রশস্ত। এগুলোতে আধুনিক ও চার-তারকা মানের আরামদায়ক আসবাব আছে।
বাথরুমে মিলবে অ্যান্টি-ফগিং আয়না, অলঙ্কার সামগ্রীসহ ড্রেসিং টেবিল, মেক-আপের কামরা, হেয়ারড্রায়ার ও হেয়ার স্ট্রেইটনার। এছাড়া ফ্রি ওয়াইফাই তো আছেই।

সোম দোনা হোটেলের বার লাউঞ্জসোম দোনার ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, ‘নারীবান্ধব আধুনিক হোটেলটিতে প্রকৃতির সান্নিধ্যে সাগরপাড়ে সত্যিকারের আরামপ্রদ অবকাশযাপনের নিশ্চয়তা রয়েছে। নারীদের উপযোগী পরিবেশ সাজানো আছে সবখানে। দ্বীপের চারপাশে ভ্রমণের সুবাদে অতিথিরা স্থানীয় সংস্কৃতি সম্পর্কে ধারণা পাবেন।’

সোম দোনা হোটেলের রেস্তোরাঁপুরুষদের থাকার অনুমতি না রাখলেও স্পেনের লিঙ্গ বৈষম্য আইন মেনে চলতে কয়েকজন পুরুষ কর্মী নিযুক্ত রয়েছে হোটেলটিতে।

সোম দোনা হোটেলনারী গ্রাহকদের ঘিরে ক্রমবর্ধমান ব্যবসায়িক প্রবণতা পর্যবেক্ষণ থেকে হোটেলটির ভাবনা এসেছে। এ তথ্য জানিয়ে স্যাম হোটেলসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জোয়ান এনরিক কাপেলা বলেন, ‘সোম দোনা একটি অভিনব হোটেল যা মেজোরকার পর্যটন খাতের উন্নয়নে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।’

সোম দোনা হোটেলসূত্র: ডেইলি মেইল

 

আরডি/আইনিউজ