সৌদি আরবে প্রবাসী নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে কাজ করছে সরকার

সিলেট: বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, সৌদি আরবে নারী শ্রমিক নির্যাতন ও হত্যা রোধে সরকার সবধরনের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

বুধবার (২ অক্টোবর) সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি।

তিনি বলেন, নারী কর্মীদের নির্যাতনের বিষয়ে সৌদি আরবের আইনে হস্তক্ষেপের সুযোগ নেই। তবে কুটনৈতিক তৎপরতার মাধ্যমে সমস্যা সমাধনে উদ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে।

মন্ত্রী আরও বলেন, সম্প্রতি এ বিষয়ে সৌদি সরকারের সাথে আলোচনা হয়েছে, আগামী নভেম্বরে সৌদি আরব সফরে এসব সমস্যা নিয়ে ফের সৌদি সরকারের সাথে কথা বলবেন তিনি। সমস্যা সৃষ্টির জন্য অনেক রিক্রুটিং এজেন্সি নারী কর্মীদের বয়স জালিয়াতিকে দায়ী করে মন্ত্রী বলেন, এসব বন্ধে উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।

সম্প্রতি সৌদি আরবে নির্যাতনে নিহত মানিকগঞ্জের একজন নারী গৃহকর্মীর লাশ দেশে ফেরানোর ব্যাপারে তিনি জানান, সেখানে আইনী জটিলতা রয়েছে। তা সমাধান হয়ে গেলে লাশ ফিরিয়ে আনা সম্ভব বলেও জানান তিনি।

সাম্প্রতিক সৌদি আরব থেকে নির্যাতনের শিকার হয়ে দেশে ফিরেছেন বেশ কিছু নারী শ্রমিক। এদের অনেকে যৌন নির্যাতনের শিকার হওয়ার কথাও জানিয়েছেন। দেশে আসার সময় প্রাপ্য বেতনও তাদের দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন নির্যাতিত এই নারীরা।

সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি লুৎফুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরীর পরিচালনায় বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন দলটির উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য তোফায়েল আহমদ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ, দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য নুরুল ইসলাম নাহিদ, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, মিসবাহউদ্দিন সিরাজ, কার্যনির্বাহী সদস্য বদরউদ্দিন আহমদ কামরান, অধ্যাপক রফিকুর রহমান প্রমুখ।

আইনিউজ/এসডি